থাম্বনেইল অর্থ কি - ইউটিউব থাম্বনেইল তৈরি করার নিয়ম

থাম্বনেইল অর্থ কি? ইউটিউব থাম্বনেইল তৈরি করার নিয়ম

যে কোনো আর্টিকেল বা ভিডিও কন্টেন্টের টাইটেলের পর পরই মূল আকর্ষণের জায়গা হলো থাম্বনেইল (Thumbnail)। বিশেষ করে ইউটিউব ভিডিওর জন্য থাম্বনেইলকে প্রধান আকর্ষণ হিসেবে বিবেচনা করা হয়। কিন্তু থাম্বনেইল অর্থ কি, ইউটিউব থাম্বনেইল সাইজ কত এবং কিভাবে তৈরি করতে হয় তা জানার কৌতুহল প্রায় অনেকেরই রয়েছে।

আপনি যদি একজন ভিডিও কন্টেন্ট ক্রিয়েটর হয়ে থাকেন অথবা থাম্বনেইল সম্পর্কিত বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর জানতে চান, তবে এই আর্টিকেলটি আপনার জন্যই তৈরি করা হয়েছে।

আজ আমি আপনাদেরকে থাম্বনেইল সম্পর্কে সচারাচর যে প্রশ্ন গুলো আসে, তার প্রায় সবকটারই উত্তর দেবো এবং সেইসাথে ব্লগ অথবা ইউটিউব ভিডিওর জন্য কিভাবে একটি চমৎকার থাম্বনেইল তৈরি করবেন, তার পুরো প্রসেস দেখিয়ে দেবো।

চলুন প্রথমেই জেনে নিই থাম্বনেইল কাকে বলে এবং কি কাজে ব্যবহার করা হয়।

থাম্বনেইল অর্থ কি?

থাম্বনেইল (Thumbnail) একটি ইংরেজি শব্দ। যা অর্থ হলো “ছোট”।

থাম্বনেইল বলতে ছবি বা ভিডিওর ছোট-আকারের সংস্করণ, যা শনাক্ত এবং সংগঠিত করার জন্য ব্যবহৃত হয়।

ডিজিটাল ছবির যুগে, ভিজ্যুয়াল সার্চ ইঞ্জিন এবং ইমেজ-অর্গানাইজিং প্রোগ্রাম গুলোতে সাধারণত থাম্বনেইল ব্যবহার করা হয়।

সহজ ভাষায় বলতে গেলে, থাম্বনেইল হলো একটি ছবি বা চিত্র, যাকে আপনি পোস্টার বা ব্যানার হিসেবেও বিবেচনা করতে পারেন।

ইউটিউব থাম্বনেইল কি?

ইউটিউব ভিডিওর উপরে যে পোস্টার বা ব্যানারটি প্রথম প্রদর্শিত হয়, তাকেই ইউটিউব থাম্বনেইল বলে।

ইউটিউব ভিডিও প্রধান আকর্ষণের জায়গাই হলো দৃষ্টিনান্দন থাম্বনেইল। আপনার ভিডিওতে ব্যবহৃত থাম্বনেইলটি যতবেশী আকর্ষণীয় হবে ভিডিওর CTR ততই বৃদ্ধি হবে।

CTR এর পূর্ণরূপ হলো Click Through rate. ইউটিউবের জন্য যারা ভিডিও তৈরি করেন, তারা অবশ্যই জানেন ভিডিও ভাইরাল হওয়ার জন্য CTR কতটা গুরুত্বপূর্ণ।

থাম্বনেইল এর মাধ্যমে কন্টেন্টের মূল মেসেজ সম্পর্কে বলে দেওয়া হয়। অর্থাৎ, আপনার ভিডিও কন্টেন্টটি কোন ক্যাটাগরির এবং কিসের উপর ভিত্তি করে তৈরি করা হয়েছে, তার ছোট্ট আইডিয়া থাম্বনেইলে উল্লেখ করতে হবে।

যেমন ধরুন, আপনি “Make money online in easy way” এই কিওয়ার্ডের উপর একটি ভিডিও তৈরি করেছেন।

এখন আপনার থাম্বনেইলে অবশ্যই ’Make money online বা অনলাইন থেকে আয়’ করার বিষয়টি উল্লেখ করে দিতে হবে।

আপনি এই বিষয়টাকে যতটা সহজ ও সুন্দর ভাবে থাম্বনেইলে ফুটিতে তুলতে পারবেন, আপনার ভিডিওতে ঠিক তত বেশিই ক্লিক পড়বে এবং ভিউয়ার্সদের  এংগেজমেন্ট বাড়বে।

ইউটিউব থাম্বনেইল সাইজ কত?

নতুন কন্টেন্ট ক্রিয়েটরেরা থাম্বনেইল তৈরি করতে গিয়ে কিছু ভুল করে। তারমধ্যে সবচেয় বড় ভুলটা হয় থাম্বনেইল সাইজ নিয়ে।

অনেকেই মনে করেন যে, ভিডিওর কোনো অংশ থেকে স্ক্রিনশট নিয়ে এটাই সারাসরি থাম্বনেইল হিসেবে ব্যবহার করলেই হবে। কিন্তু বিষয়টা মোটেও এমন নয়।

কেননা, ইউটিউব ভিডিওর থাম্বনেইলের একটি নির্দিষ্ট সাইজ রয়েছে। আর এই সাইজটি মূলত ইউটিউব ওয়েবসাইটের লেআউট বা ফ্রেমিং এর উপর ভিত্তি করেই নির্ণয় করা হয়েছে।

ইউটিউব থাম্বনেইল সাইজ হলো 1280×720 পিক্সেল। অবশ্যই সকলেরই উচিত এই সাইজ দিয়েই থাম্বনেইল তৈরি করা।

অনেকের ভিডিওতে দেখবেন, কাস্টম থাম্বনেইল ব্যবহার করার পরও থাম্বনেইলের ডানে -বামে কিছু অংশ ফাকা থাকে। এটা অবশ্যই দেখতেও খারাপ দেখা যায়।

এটি হওয়ার কারণ হলো ইউটিউবের দেওয়া থাম্বনেইলের প্রোপার সাইজ ব্যবহার না করা। বুঝতেই পারছেন, থাম্বনেইল তৈরির জন্য সাইজ ফলো করা কতটা গুরুত্বপূর্ণ।

ইউটিউব থাম্বনেইল তৈরি করার নিয়ম

ইউটিউব ভিডিওর জন্য বিভিন্ন উপায়ে থাম্বনেইল তৈরি করা যায়। বর্তমানের কম্পিউটারের পাশাপাশি মোবাইলে দিয়েও বেশ চমৎকার থাম্বনেইন তৈরি করা সম্ভব।

কম্পিউটার দিয়ে থাম্বনেইল তৈরি করার জন্যে আপনি অ্যাডোবি ফটোশপ ব্যবহার করতে পারেন।

আর মোবাইল দিয়ে থাম্বনেইল তৈরির জন্যে রয়েছে Photo Editor, Canva ইত্যাদি।

নিজে নিজেই ইউটিউব ভিডিওর জন্য থাম্বনেইল কিভাবে তৈরি করবেন তা জানতে এই ভিডিওটি দেখুন

থাম্বইনেইল তৈরির করার জন্যে অনেক সময় থাম্বনেইল ব্যাকগ্রাউন্ড এর প্রয়োজন হয়। কোথায় থেকে সুন্দর সুন্দর ব্যাকগ্রাউন্ড ব্যবহার করবেন, তা এই ভিডিওটিতে বলা দেওয়া হয়েছে।

আপনারা অবশ্যই ইউটিউবের কপিরাইট নিয়ম-কানুন মেনে থাম্বনেইল তৈরি করবেন।

এই ভিডিওটিতে আমরা থাম্বনেইলের ব্যাকগ্রাউন্ড হিসেবে যদিও গুগল ইমেজ ব্যবহার করেছি, তবে আপনারা অবশ্যই কপিরাইট ফ্রি ইমেজ ব্যবহার করবেন।

তবে একথা সত্য যে, আপনি ইচ্ছে করলে গুগল ইমেজ গুলোও থাম্বনেইলে ব্যবহার করতে পারবেন। তবে ইমেজ গুলোকে ভালো করে মডিফাই করতে হবে। তাহলে আশাকরি ভিডিওর থাম্বনেইলে কপিরাইট বা স্ট্রাইক ইস্যু আসবে না।

গুরুত্বপূর্ণ কিছু কথাঃ

প্রিয় পাঠক, আপনি যদি একজন কন্টেন্ট ক্রিয়েটর হয়ে থাকেন, তবে নিশ্চই ইউটিউব থাম্বনেইল তৈরি করার নিয়মটি আপনাদের খুবই কাজে আসবে।

আমাদের পরামর্শ হলো, থাম্বনেইল তৈরি করার সময় ইউটিউবের দেওয়া রুলস গুলো ফলো করে থাম্বনেইল গুলো তৈরি করবেন। বিশেষ করে থাম্বনেইল সাইজটি অবশ্যই 1280×720 পিক্সেল ব্যবহার করবেন।

যাইহোক, আশাকরি এই আর্টিকেলটি থেকে আপনারা উপকৃত হয়েছেন। এই বিষয়ে যদি আপনাদের কারো কোনো প্রশ্ন বা মতামত থাকে তবে কমেন্ট করুন। ধন্যবাদ।

Add comment

Posts

Your Header Sidebar area is currently empty. Hurry up and add some widgets.