মোবাইলে ভালো ছবি তোলার নিয়ম

মোবাইলে ভালো ছবি তোলার নিয়ম ও কৌশল

একটি স্মার্ট মোবাইল ফোন সাথে থাকলে ছবি তোলার জন্য আলাদা ক্যামেরার প্রয়োজয় হয় না। মোবাইলে ভালো ভালো ছবি তোলার কৌশল গুলো ফটোগ্রাফারেরা বিভিন্ন ভাবে উপস্থাপন করেছেন। তাদের পরামর্শের প্রেক্ষিতেই আজ আমরা মোবাইলে ভালো ছবি তোলার নিয়ম জানার চেষ্টা করবো।

আমাদের অনেকেই আছে, ট্রাভেল করতে পছন্দ করে। ট্রাভেলে গিয়ে প্রাকৃতিক সৌন্দর্যকে স্মৃতি হিসেবে মেমোরাইজ করতে আমরা সাধারণত মোবাইলে ছবি তোলে রাখি। তাছাড়া, গ্রাম বাংলার প্রাকৃতিক ছবি তুলতেও আমরা বেশ স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি।

অনেকেই মনে করেন, ছবি সুন্দর করে তোলার জন্য ক্যামেরা অপরিহার্য বিষয়। তবে এই কথা পুরোপুরি সঠিক নয়। মোবাইল দিয়েও এমন চমৎকার ছবি তোলা যায়, যা অনেক ক্ষেত্রে ক্যামেরাকেও হার মানায়।

ক্যামেরা ব্যবহারের সক্ষমতা সবার হয়ে উঠেনা। তাই মোবাইল ফোনের ক্যামেরা ব্যবহার করেই প্রাকৃতিক দৃশ্য বা প্রাকৃতিক সৌন্দর্যকে কিভাবে ছবির মাধ্যমে মোবাইলে ধারণ করবেন তার বিস্তারিত বর্ণনা দিয়েই এই আর্টিকেলটি তৈরি করা হয়েছে।

মোবাইলে ভালো ছবি তোলার নিয়ম

অ্যান্ড্রয়েড ফোনে ভালো ছবি তুলবেন যেভাবে
অ্যান্ড্রয়েড ফোনে ভালো ছবি তুলবেন যেভাবে

ছবি তোলার জন্য কিছু নিয়ম-কানুন রয়েছে। যেগুলো মোবাইল অথবা ক্যামেরা উভয়ের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য। তবে ক্যামেরার ক্ষেত্রে অনেক সময় খুব বেশী নিয়ম-কানুন ফলো না করলেও কাজ হয়ে যায়।

কিন্তু মোবাইল যেহেতু ক্যামেরা অপেক্ষা কিছুটা দুর্বল, সেহেতু মোবাইলে ছবি ধারণ করতে একটু বেশী নিয়ম-কানুন ফলো করা উচিত। ফটোগ্রাফারদের পরামর্শ অনুযায়ী মোবাইলে ভালো ছবি তোলার উপায় গুলো নিচে তুলে ধরা হলো। –

মোবাইল লেন্স পরিষ্কার রাখুন

বাহিরের আবহাওয়ায় সারাক্ষণ ধুলাবালি উড়ে। এই পরিস্থিতিতে মোবাইল হাতে থাকুক অথবা পকেটে থাকুক, যেভাবেই রাখা হয় না কেন, কোনোনা কোনো ভাবে মোবাইলের লেন্সের ওপর ময়লা জমে যায়।

মোবাইলের লেন্স অপরিস্কার থাকলে ছবি ঝাপসা হয় এবং ছবি তোলাতে ওভারল্যাপিং প্রবলেম বেশী পরিমাণে দেখা দেয়। তাই ছবি তোলার আগে লেন্স পরিস্কার করা খুবই জরুরি।

তবে লেন্স পরিস্কার করার সময় লেন্সের ওপর যেনো দাগ না পড়ে যায়, সেদিকে অবশ্যই লক্ষ্য রাখতে হবে।

হাত না কাঁপিয়ে স্থির ভাবে ছবি তুলুন

অনেক সময় ঝড়ো আবহাওয়া বা তীব্র শীতের দিনে ছবি তুলতে গিয়ে প্রায় সবাই হাতই কাঁপে। কিন্তু ছবি তোলার সময় হাত কাঁপলে ছবি ভালো হবে না এটা স্বাভাবিক।

এক্ষেত্রে ট্রাইপড ব্যবহার করতে পারেন। বর্তমান বাজারে অল্প দামেই মোবাইলের ট্রাইপড পাওয়া যায়। সম্ভব হলে ট্রাইপড ব্যবহার করুন।

মোবাইলে ট্রাইপড ব্যবহার করে ছবি তুললে হাত কাঁপার ভয় নেই এবং ছবির ফ্রেম সঠিক ভাবে নির্ণয় করা অনেক সহজ হয়।

সঠিক আলো নির্বাচন করুন

মোবাইলে ছবি তোলার ক্ষেত্রে স্বাভাবিক আলো নির্ণয় করতে হবে। কিন্তু অনেক মোবাইলের ক্যামেরা লো-লাইট বা স্বাভাবিক আলোতে স্পষ্ট ছবি তুলতে সক্ষম নয়।

এক্ষেত্রে আপনি ছবির অতিরিক্ত আবছাভাব দূর করতে দিনের বেলাতেও মোবাইলের ফ্ল্যাশ ব্যবহার করতে পারেন।

ক্যামেরায় সর্বোচ্চ রেজুলেশন ব্যবহার করুন

আপনার মোবাইলের ক্যামেরায় যদি রেজুলেশন বাড়ানো -কমানোর অপশন থাকে, তবে সবসময় সর্বোচ্চ রেজুলেশন সিলেক্ট করে নিন।

ছবির ভালো হওয়ার জন্য রেজুলেশনের বিকল্প নেই।

বিভিন্ন কোণ থেকে ছবি তোলার চেষ্টা করুন

ক্যামেরাও ক্ষেত্রেও অনেক সময় প্রাকৃতির স্বাভাবিক আলো নির্ণয় করা অনেকটা কঠিন হয়ে যায়। মোবাইলের ক্ষেত্রে এই বিষয়টা বেশি হয়।

তাই মোবাইলে ছবি তোলার সময় বিভিন্ন কোণ থেকে ছবি তোলার চেষ্টা করুন।

ছবি তোলার সাধারণ নিয়ম হচ্ছে, একই বস্তু বা দৃশ্যের ছবি একাধিক তোলার প্রয়োজন হয়, সেক্ষেত্রে বিভিন্ন কোণ থেকে ছবি তোলা উচিত।

এভাবে ছবি তুললে উক্ত বস্তু বা দৃশ্যের একাধিক ভালো ছবি সংগ্রহে রাখতে পারবেন।

ডিজিটাল জুম এড়িয়ে চলুন

জুম করে ছবি তোলা ছবির কোয়ালিটি নষ্ট করে দেয়। আপনি হয়ত কখনও লক্ষ্য করেছেন যে, জুম করে ছবি তোলার কারণে ছবিটি ফাটা ফাটা বা অনেকটা ঝাপসা হয়ে যায়।

পক্ষান্তরে আপনি যে প্রাকৃতিক দৃশ্যের ছবি তুলছেন তার কাছে গিয়ে আপনার সাবজেক্টের ছবিটি তুলতে পারেন।

ছবি তোলার বস্তুটি যদি খুবই ক্ষুদ্র হয়, তবে সেই বস্তুর পরিষ্কার ছবি তোলার জন্যে বস্তুটির কাছে গিয়ে জুম ব্যবহার করতে পারেন।

তবে যতটা সম্ভব বস্তুর কাছাকাছি গিয়ে ছবি তোলার চেষ্টা করুন।

ক্যামেরার রেসপন্স টাইম সম্পর্কে ধারণা নিন

মোবাইলের ক্যামেরা দিয়ে আমরা যখন কোনো ছবি উঠাতে ডিজিটাল শাটার বাটনে ক্লিক করি, তখন থেকে ছবি ওঠার আগ পর্যন্ত মাঝখানে সামান্য সময়ের পার্থক্য থাকে।

ক্যামেরার রেসপন্স টাইমে মোবাইলের ব্র্যান্ড ও মডেল ভেদে ভিন্নতা থাকতে পারে।

যেমন – আইফোন মোবাইলের ক্যামেরার রেসপন্স টাইম অনেক কম হয়। বাটনে ক্লিক করার সাথে সাথেই ছবি উঠে যায়।

আবার অন্য ব্র্যান্ডেরও এমন দামী দামী মোবাইল আছে, যেগুলোতে ক্লিক করার সাথে সাথেই ছবি উঠে যায়।

তবে কম বাজেটের মোবাইল ফোন গুলোর ক্যামেরা রেসপন্স টাইম একটু বেশি হয়। যে কারণে ক্যামেরার শাটার বাটনে ক্লিক করার কয়েক মিলিসেকেন্ড পর ছবি উঠে।

আপনার মোবাইলের ক্যামেরা রেসপন্স টাইম সম্পর্কে ধারণা রাখতে হবে। তাহলে ছবি তোলার সময় আপনার কাঙ্খিত ছবি ঘোলাটে বা ঝাপসা হবে না।

ভিডিও বা ছবি তোলার ক্ষেত্রে ফ্রেমিং

মোবাইলে ছবি তোলার ক্ষেত্রে আমরা হরিজন্টাল এবং ভার্টিক্যাল ফ্রেম ব্যবহার করি।

মোবাইলকে হরিজন্টাল করে ছবি তুললে আশে পাশের অনেক বেশি দৃশ্য ছবিতে রাখা যায়।

আর ভার্টিক্যাল ফ্রেমে ছবি তুললে ছবি উপরে নিচে লম্বা হয়। ছবি তোলার সময় প্রথমেই ছবির ফ্রেমিং নির্ণয় করুন।

ব্যবহারের দিক দিয়ে হরিজন্টাল ফ্রেমের ছবি বেশি এগিয়ে। তবে ক্ষেত্র বিশেষে ভার্টিক্যাল ফ্রেমের ছবিও খুব দরকারী।

শুটিং মোড পরীক্ষা করুন

কোনো ক্ষুদ্র বস্তুর ছবি তোলার সময় মোবাইলের ক্যামেরাকে ম্যাক্রো মোডে রাখুন।

এই অপশনটি আপনার মোবাইলের ক্যামেরা অ্যাপে পেয়ে যাবেন।

কিন্তু ল্যান্ডস্কেপ বা পোর্টেট মোডে ছবি তোলার সময় অবশ্যই ক্যামেরা অপশন থেকে ম্যাক্রো মোডটি বন্ধ রাখুন।

মোবাইল ধরবেন যেভাবে

মোবাইলে ভালো মানের ছবি তোলার জন্য মোবাইল ধরার কিছু চমৎকার পদ্ধতি রয়েছে।

গবেষকেদের পরামর্শ অনুযায়ী মোবাইলে ছবি তোলা বা ভিডিও ধারণ করার সময় অবশ্যই মোবাইল ফোনটি অনুভূমিকভাবে বা আড়াআড়ি ধরবেন।

মোবাইলের ক্যামেরা ছবি তোলার সময় হোয়াইট ব্যালেন্স বেশ ভালো ভাবেই ডিটেক্ট করতে পারে। তবে লো-লাইট কন্ডিশনে একটু প্রবলেম হয়।

মোবাইল হাতে রেখে ছবি তোলার সময় যদি লো-লাইটের জন্য ছবিকে সঠিক ভাবে ডিটেক্ট করতে না পারে, তবে মোবাইলের ক্যামেরাকে সামান্য এদিক ওদিক নাড়াচড়া করতে পারেন।

যতক্ষণ পর্যন্ত নির্দিষ্ট সাবজেক্টের উপর ক্যামেরা ফোকাস করতে না পারে, ঠিক ততক্ষণই সময় দিন, এতে ভালো ফলাফল পাবেন।

ছবি তোলায় অ্যাপসের সাহায্য নিতে পারেন

মোবাইলে ডিফল্ট ক্যামেরা অ্যাপসে অনেক সময় কিছু ফিচারের কমতি থাকে। যে কারণে প্রাকৃতিক দৃশ্য গুলোর ছবি খুব ভালো করে ফুটিয়ে তোলা যায় না।

এক্ষেত্রে আপনি বিভিন্ন ধরণের অ্যাপসের সাহায্য নিতে পারেন।

আইফোন ব্যবহারকারী হয়ে থাকলে ‘Cycloramic’, ‘Camera Plus’, ‘Photosynth’, ‘Vascocam’, ‘Camera Pro ইত্যাদি অ্যাপস ব্যবহার করতে পারেন।

এন্ড্রোয়েড মোবাইল ব্যবহারকারী হয়ে থাকলে ‘Camera for Android’, ‘Snap Camera HDR’, ‘Camera 360 Ultimate’, ‘Best HDR Camera’ ইত্যাদি অ্যাপস ব্যবহার করতে পারেন।

আবার উইন্ডোজ মোবাইল ব্যবহারকারীদের জন্য  ‘Super Camera’, ‘Lazy Lens’, Sketch Camera ইত্যাদি অ্যাপস গুলো ব্যবহার করা যেতে পারে।

এই অ্যাপস গুলোতে আপনি এক্সট্রা কিছু ফিচার পাবেন, যেই ফিচার গুলোকে মোবাইলে ভালো ছবি তোলার কৌশল হিসেবে ব্যবহার করা যেতে পারে।

শেষ কথাঃ

ভালো মানের ছবি তুলতে পারাও একটি চমৎকার স্কিল। এই স্কিলের উপর কাজ করে অনলাইন থেকে খুবই সহজ উপায়ে অর্থ উপার্জন করা যায়। ভালো মানের ছবি তোলার জন্য ক্যামেরা অত্যাবশ্যক নয়।

আপনি যদি ছবি তোলার উপর প্রোপারলি স্কিল ডেভেলপ করতে পারেন, তবে মোবাইলের মাধ্যমেই প্রাকৃতিক দৃশ্য গুলোর ছবি তুলে অনলাইনে বিক্রি করে আয় করতে পারবেন।

যাইহোক, আমি চেষ্টা করেছি ফটোগ্রাফারদের গবেষণার ভিত্তিতে মোবাইলে ভালো ছবি তোলার নিয়ম ও কৌশল আপনাদের সামনে উপস্থাপন করা জন্যে।

আপনি যদি স্মার্টফোনে ভালো ছবি তুলতে চান, তবে উপরোল্লিখিত পরামর্শ গুলো ফলো করতে পারেন। আশাকরি এতে আপনি খুবই ভালো ফলাফল পাবেন।

প্রিয় পাঠক, মোবাইল দিয়ে ভালো ছবি তোলার নিয়ম সম্পর্কে আপনার যদি কোনো অভিমত বা পরামর্শ থাকে, তবে অবশ্যই কমেন্টে জানিয়ে দিন।

Add comment

Posts

Your Header Sidebar area is currently empty. Hurry up and add some widgets.